fbpx

অমিতাভ পালের কবিতা ‘স্বপ্নপরিধি’

Pinterest LinkedIn Tumblr +

অমিতাভ পালের জন্ম ১৯৬২ সালের ৫ ডিসেম্বর ময়মনসিংহে। পড়াশোনা করেছেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাঁর প্রকাশিত কবিতাগ্রন্থের মধ্যে আছে: নতুন বাল্বের আলো, আলোর আলোচনা, শ্রীমতি কবিতা, পুনর্নির্বাচিত আমি, গণবেদনার গাঁথা ও অ্যাপসগুলি। তাঁর প্রকাশিত গল্পগ্রন্থ: রাতপঞ্জী, অসচরাচর। সৃষ্টিশীল সত্বা অমিতাভ পাল এখন একাত্তর টিভিতে কর্মরত। বিবিএস বাংলা’র পাঠকদের জন্য তিনি লিখেছেন কবিতা ‘স্বপ্নপরিধি’।

স্বপ্নপরিধি

শহরের রোড ডিভাইডারে গাছ লাগানো হচ্ছে
একটা গর্তে তাদের পুঁতে
জল ঢেলে দিচ্ছে মালিরা
তারপর তাদের ছেড়ে দিচ্ছে নিজের পায়ে দাঁড়াতে
আমিও এই গাছগুলির মতো একদা
মফস্বলের নার্সারি থেকে শহরে এসেছিলাম
এক আত্মীয়ের বাড়িতে উঠে পেয়েছিলাম
প্রথম গর্ত এবং জল
তারপর বেরিয়ে এসেছিলাম নিজের পায়ে দাঁড়াতে
ভাড়া বাসা প্রেম সংসার
রঙিন পুঁতির মালার মতো স্বপ্ন
শিশু
ব্যস্ততা-
এইসব জনসমাগমে থাকতে থাকতে
কবে যেন বুড়িয়ে গেছি
কোন এক ফুটপাথে কোনমতে দাঁড়িয়ে থাকা মৃত গাছটার মতো
এখন আবার সেই মফস্বলে ফিরে
তার মাটিতে একটু শুতে পারলে হয়
কিন্তু গাছ কাটার কন্ট্রাক্টর কি সাধারণ একটা গাছের ইচ্ছাকে
এতটা মূল্য দেবে
বরং শূন্য রোড ডিভাইডারে আমার শূন্যস্থান পূরণ করার জন্য
আরো একটা গাছ মাথা তুলে দাঁড়াতে আসবে
আর আমি-
কোন এক স মিলের কবরখানায় হয়তো পড়ে থাকবো
নামগন্ধহীন কোন লাশের মতো।

Share.

Leave A Reply