fbpx

ঢাকেশ্বরী মন্দিরে লিফট স্থাপনসহ আনুষঙ্গিক উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নাধীন

Pinterest LinkedIn Tumblr +

ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে পূজারীদের সুবিধার্থে লিফট স্থাপনসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে চলমান দুর্গাপূজা উদযাপন কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে মন্দির প্রাঙ্গণে শেখ ফজলে নূর তাপস এই তথ্য জানান।

শেখ তাপস বলেন, ‘ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন সবসময়ই ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের উন্নয়নে পাশে আছে। তারই ধারাবাহিকতায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিপ্রায় অনুযায়ী মন্দিরের মূল ভবনে পূজারীদের সুবিধার্থে একটি লিফটসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। আমরা আশা করছি, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই এ কার্যক্রম সমাপ্ত হবে।‘

বরাবরের মতো এবারও করপোরেশন এলাকার সকল পূজামণ্ডপকে সহযোগিতা করা হয়েছে উল্লেখ করে ঢাদসিক মেয়র বলেন, ‘ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন বরাবরই ঢাকা শহরে যতগুলো পূজামণ্ডপ আছে, সেগুলোকে সহযোগিতা করে থাকে। এবারও ঢাকেশ্বরী মন্দিরসহ দক্ষিণ সিটিতে যেসকল মন্দির ও মণ্ডপে পূজা আয়োজন করা হচ্ছে, সেগুলোকে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। আপনারা যে কোন সময় যে কোন বিষয়ে আমাদেরকে জানালে, আমরা আপনাদের পাশে থাকব।‘

ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস এ সময় উপস্থিত সকল পূজারীসহ হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দুর্গাপূজার শুভেচ্ছা জানান।

ঢাকেশ্বরী মন্দির পরিদর্শনের পর ঢাদসিক মেয়র রামকৃষ্ণ মিশন মন্দির, শাঁখারীবাজার কালিমন্দির সংলগ্ন প্রতিদ্বন্দ্বি ক্লাব, ওয়ারী সর্বজনীন পূজা মণ্ডপ এবং গেন্ডারিয়ার শ্রী শ্রী শিবমন্দির শারদীয় দুর্গাপূজা পরিদর্শন করেন।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সহযোগিতায় ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে ১ কোটি ৪৯ লক্ষ টাকা ব্যয়ে লিফট, লিফটকোর, জেনারেটর স্থাপনসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক কার্যক্রম বাস্তবায়নাধীন।এছাড়াও পূজা উপলক্ষ্যে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকার ১৪৮টি মন্দির ও পূজামণ্ডপকে করপোরেশন হতে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরকে ৫ লক্ষ টাকা, রামকৃষ্ণ মিশনকে দেড় লক্ষ টাকা এবং বাকী মন্দির ও মণ্ডপগুলোর প্রতিটিকে ৫ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করা হয়েছে।

Share.

Leave A Reply