fbpx

সেজান জুস কারখানায় বিদ্যুতের তার থেকে আগুন লেগেছে: সিআইডি

Pinterest LinkedIn Tumblr +

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে হাসেম ফুড কারখানায় অগ্নি দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের মরদেহ আজ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। মরদেহ হস্তান্তর শেষে বৈদ্যুতিক তার থেকে হাসেম ফুড কারখানায় আগুন লেগেছে বলে জানান, পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) অ্যাডিশনাল ডিআইজি (ঢাকা বিভাগ) ইমাম হোসাইন।

আজ ৪ আগস্ট (বুধবার) অগ্নিদগ্ধ হয়ে নিহতদের লাশ হস্তান্তর শেষে  ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গ প্রাঙ্গণে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান ।

এসময় যত দ্রুত সম্ভব মামলার তদন্ত কার্যক্রম শেষ করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলেও জানায় সিআইডির এই অ্যাডিশনাল ডিআইজি।

ওই ঘটনায় আসামির জামিন পাওয়ার ব্যাপারে  তিনি বলেন, এখানে বিচার বিভাগ রয়েছে। কোন আসামি জামিনে থাকবে, কোন আসামি জেলখানায় থাকবে তা সম্পূর্ণ বিচার বিভাগের এখতিয়ার। এখানে কোনো কথা বলার সুযোগ নেই। আদালত যা ভালো মনে করেছেন সেভাবে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। আমরা আমাদের কাজ করে যাচ্ছি। এক্ষেত্রে আসামির জামিন, বাইরে থাকাকে আমরা কোনো বাধা মনে করছি না।

সিআইডির অ্যাডিশনাল ডিআইজি  আরও বলেন,  এ তদন্তে আমরা বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করছি। এসব কাজ ধাপে ধাপে সম্পন্ন করতে হয়। এখন পর্যন্ত আমরা আগুন কোথা থেকে লেগেছে তার কাছাকাছি অবস্থানে চলে গেছি। এরপর বাকি বেশকিছু রিপোর্ট লাগবে, বিভিন্ন সংস্থার রিপোর্ট লাগবে, কিছু বিশেষজ্ঞের রিপোর্ট লাগবে। এখন পর্যন্ত সুনির্দিষ্ট করে বলার মতো সময় হয়নি।

অগ্নিদগ্ধ হয়ে নিহত ৪৮ জনের মধ্যে সিআইডির ফরেনসিক ল্যাবরেটরির মাধ্যমে ডিএনএ পরীক্ষায় ৪৫ জনের পরিচয় শনাক্ত হওয়া গেছে। এর মধ্যে আজ ২৪ জনের লাশ হস্তান্তর করা হয়। এ সময় নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে লাশ দাফনের জন্য প্রত্যেককে ২৫ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছে।

Share.

Leave A Reply